রফতানি বাড়াতে আগ্রহী Royal Enfield, খুলতে চলেছে নতুন কারখানা

মাঝারি আকারের মোটরসাইকেলের বিশ্বব্যাপী বাজারে আরও ভাল অবস্থানে পৌঁছতে নতুন লক্ষ্যের দিকে এগোতে চায় Royal Enfield। একে আরও উন্নত বিশ্বমানের ব্র্যান্ড করে তুলতে মূল সংস্থা ইচার মোটর্স এখন লাতিন আমেরিকা ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বাজারে জাঁকিয়ে বলতে চাইছে।

ছবি দেখুন
নতুন লক্ষ্যের দিকে এগোতে চায় Royal Enfield

Highlights

  • কোম্পানির লাভের 90 শতাংশ ভারতের বাজার থেকে আসে
  • এবার রপ্তানিতে নজর দেবে Royal Enfield
  • দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া ও লাতিন আমেরিকার বাজারে বিক্রি শুরু হবে

মাঝারি আকারের মোটরসাইকেলের বিশ্বব্যাপী বাজারে আরও ভাল অবস্থানে পৌঁছতে নতুন লক্ষ্যের দিকে এগোতে চায় Royal Enfield। একে আরও উন্নত বিশ্বমানের ব্র্যান্ড করে তুলতে মূল সংস্থা ইচার মোটর্স এখন লাতিন আমেরিকা ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বাজারে জাঁকিয়ে বলতে চাইছে। ভারতের বাইরে সংস্থার প্রথম কারখানা থাইল্যান্ডে চালু হতে চলেছে ছ'মাসের মধ্যে। পাশপাশি Royal Enfield লাতিন আমেরিকাতেও আরও একটি কারখানা নির্মাণ করতে চাইছে। সংস্থার চিফ এঘজিকিউটিভ আধিকারিক বিনোদ দেসারি মূল লভ্যাংশের ২০ শতাংশ আন্তর্জাতিক বাজার থেকে পেতে চাইছেন। এর পাশাপাশি বাকি ২০ শতাংশ লভ্যাংশ তাঁরা পেতে চাইছেন পোশাক, যন্ত্রাংশ ও অন্যান্য পরিষেবা থেকে। 

7l49g4f4

Royal Enfield-এর অ্যাপারাল ও অ্যাকসেরারি বিভাগের প্রধান পুনিত সুদ

বাইক

অবশিষ্ট দেশি বাজার থেকে তুলে নেওয়াই লক্ষ্য সংস্থার। ‘ইকনোমিক টাইমস'-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বিনোদ দেসারি জানিয়েছেন, এই ভাবে লভ্যাংশের ভাগ করার পিছনে ঝুঁকি নিয়ে নতুন ব্যবসা পরিকল্পনার বিষয়টি রয়েছে। ব্যবসা বাড়াতেই এই পরিকল্পনা করা হয়েছে। 

0a31nf24

কোম্পানির সবথেকে জনপ্রিয় মোটরসাইকেল Royal Enfield Classic 350

বর্তমানে ভারতে Royal Enfield-এর ৯০ শতাংশের বেশি বিক্রি একটি বিশেষ ধরনের মোটরসাইকেল থেকেই হয়। দেসারি জানিয়েছেন, Royal Enfield 350-র পাশাপাশি অন্যান্য বিক্রি থেকেই লভ্যাংশ বাড়ানো ও নতুন সুযোগকে কাজে লাগাতে চাইছে সংস্থা। 

তিনি বলেন, ‘‘আমরা নতুন নতুন পণ্য বাজারে আনব। কিন্তু আমি চাই দ্রুত সমাধান এবং আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে আরও দ্রুত উন্নতি। তাই আমরা দু'ক্ষেত্রেই বিনিয়োগ করতে চলেছি।'' 

royal enfield 650 cc twins

650cc ইঞ্জিনের দুই মোটরসাইকেল রপ্তানি করে Royal Enfield

নতুন কৌশলী পদক্ষেপের মাধ্যমে সংস্থা তাদের বিশ্ব বাজারকে তিনভাবে বিভক্ত করেছে। ভারতীয় বাজার, পরিণত বাজার ও দূরবর্তী বাজার। 

এরই মধ্যে আন্তর্জাতিক বাজারে দু'টি যমজ মডেলে হইচই ফেলে দিয়েছে Royal Enfield। সেগুলি হল Royal Enfield Interceptor 650 ও Royal Enfield Continental GT 650। 

u1kgv544

 Royal Enfield Interceptor 650

অক্টোবর ২০১৮-র সঙ্গে তুলনা করলে দেখা যাবে সংস্থার রফতানি বিপুল ভাবে বেড়েছে (৯৮৭ শতাংশ)। বর্তমান অর্থবর্ষে প্রথম আট মাসে রফতানি বেড়েছে ১২৫ শতাংশ। Royal Enfield ধীরে ধীরে আন্তর্জাতিক বাজারে তাদের দখল আরও বাড়াতে চাইছে। গত পাঁচ বছরে সারা বিশ্বে ৬০০টি স্টোর খুলে ফেলেছে তারা।

0 Comments

সাক্ষাৎকারের সূত্র: The Economic Times

অটো সংক্রান্ত সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.

Compare Royal Enfield Bullet 350 with Immediate Rivals

Be the first one to comment
Thanks for the comments.