পড়ুন Jawa মোটরসাইকেলের রিভিউ, এই প্রথম বাংলায়

লুকস বিভাগে সব বাস্কেই টিক চিহ্ন দিয়েছে নতুন Jawa। পারফর্মেন্সেকে প্রাধান্য দিয়ে এই মোটরসাইকেল তৈরী হয়নি। রোজের ব্যবহারে আপনার আপন হয়ে উঠবে এই ইঞ্জিন। ক্লাসিক বাইক সেগমেন্টে ভারতে নিঃসন্দেহে ঝড় তুলবে এই নতুন Jawa।

ছবি দেখুন
নতুন Jawa-র লুকস 1960 সালের Jawa কে মনে করাবে

ফিরে এসেছে Jawa মোটরসাইকেল! 1960 সালের টু স্ট্রোক Jawa –র মতো ডিজাইনে বাজারে এসেছে 2018 সালের Jawa। চেক প্রজাতন্ত্র (তৎকালীন চেকোস্লোভাকিয়া) থেকে এসেছিল এই মোটরসাইকেল গুলি। সেই সময় Kyvacka কোম্পানির অধীনে ছিল এই ব্র্যান্ড। পরে ভারতীয় কোম্পানি Yezdi –র অধীনে আসে Jawa। ক্লাসিক লেজেন্ডস প্রাইভেট লিমিটেডের হাত ধরে 2018 সালে কামব্যাক করল Jawa। ক্লাসিক লেজেন্ডে প্রাইভেট লিমিটেডের 60 শতাংশ মালিকানা Mahindra –র কাছে। আমরা রাজস্থানের রাস্তায় এই গাড়ি চালিয়েছিলাম।

আরও পড়ুন: Jawa Forty Two মোটরসাইকেলের রিভিউ

ittbs8gg

নতুন Jawa

ডিজাইন ও ফিচার্স

লুকসে সবার জনর কাড়বে এই বাইক। Kyvacka –র আসল ডিজাইনকে ধরে রেখেছে লেটেস্ট Jawa। থাকছে কোম্পানির ট্রেডমার্ক হেডল্যাম্প, ফ্যেল ট্যাঙ্কে কোম্পানির ট্রেডমার্ক ক্রোম লোগো। টুইন এক্সহস্ট। সব মিলিয়ে বাইরে থেকে এই মোটরসাইকেল দেখতে হুবহু 1960 সালের Jawa Type 353 এর মতো।

qicqt3ns

Jawa -র স্পিডোমিটার

নতুন Jawa –র হেডলাইটের উপরে থাকছে উল্টো স্পিডোমিটার। বাইকের সামনে রয়েছে 18 ইঞ্চি চাকা আর পিছনে 17 ইঞ্চি চাকা। সামনের চাকার ডিস্ক ব্রেক থাকলেও পিছনের চাকায় থাকছে ড্রাম ব্রেক। থাকছে স্ট্যান্ডার্ড সিঙ্গেল চ্যানেল ABS। হ্যান্ডেরবারটি একই রকম দেখতে হলেও আগের থেকে চওড়া। 765 মিমি সিট হাইট আরামদায়ক রাইডিং পজিশান দেবে।

grsi44bo

Jawa -র সামনের চাকার ডিস্ক ব্রেক থাকলেও পিছনের চাকায় থাকছে ড্রাম ব্রেক

নতুন Jawa –র ডিজাইনে কোন খুঁত খুঁজে পাবেন না। তবে আসল Jawa –র মতো এই বাইকের বাঁ দিকে কিক স্টাসস্ট থাকছে না। পরিবর্তে থাকছে শুধু স্টার্ট বাটন। বাইকের বাঁ দিকে থাকছে 6 স্পিড ট্রান্সমিশানের গিয়ার শিফটিং লিভার।

6lmeqo2o

Jawa –র ভিতরে রয়েছে একটি 293cc লিকুইড কুলড ইঞ্জিন

ইঞ্জিন ও পারফর্মেন্স

নতুন Jawa –র ভিতরে রয়েছে একটি 293cc লিকুইড কুলড ইঞ্জিন। এই ইঞ্জিনে সর্বোচ্চ 28 bhp শক্তি আর 27Nm টর্ক পাওয়া যাবে। ইঞ্জিনের সাথেই থাকবে একটি 6 স্পিড গিয়ারবক্স।  Mahindra Mojo –র 299 cc সিঙ্গেল সিলিন্ডার ইঞ্জিনের উপরে বেস করে এই ইঞ্জিন তৈরী হয়েছে। BS-VI রেডি এই ইঞ্জিন ভবিষ্যতের সব ইমিশান আইন পাশ করবে।

19t1gg9g

Jawa –র টু স্ট্রোক ইঞ্জিনের আওয়াজ নকল করতে এই মোটরসাইকেলে বিশেষ এক্সহস্ট ব্যবহার হয়েছে

ইঞ্জিন স্টার্ট করলেই আইকনিক ইঞ্জিনের আওয়াজ শোনা যাবে। তবে আসল Jawa –র টু স্ট্রোক ইঞ্জিনের আওয়াজ নকল করতে এই মোটরসাইকেলে বিশেষ এক্সহস্ট ব্যবহার হয়েছে। নতুন Jawa তে থাকছে টুইন এক্সহস্ট। গিয়ার বদল করার সময় খুব সহজেই পা গিয়ার লিভারে পৌঁছেছে। এই গাড়ির মসৃণ এক্সিলারেশান আমাদের পছন্দ হয়েছে। যদিও একদম উপরের সিকে পায়ে ও বাতে কম্পন অনুভুত হয়েছে। তবে রোজকার ব্যবহারে এই সমস্যা কোন অসুবিধা তৈরী করবে না।

bb7mshh4

Jawa -র সর্বোচ্চ গতি 130 কিমি প্রতি ঘন্টা

নতুন Jawa তে রয়েছে একটি মসৃণ ইঞ্জিন। সহজেই 80 কিমি প্রতি ঘন্টা গতি তোলা যায়। তবে 80 কিমির বেশি গতিতে পৌঁছালে একটু সমস্যা হয় ইঞ্জিনে। যদিও এই বাইকের সর্বোচ্চ গতি 130 কিমি প্রতি ঘন্টা। 90-100 কিমি প্রতি ঘন্টা গততে সবথেকে ভালো চালানো গিয়েছে এই মোটরসাইকেল। তবে এর থেকে বেশি গতিতে পৌঁছালে পায়ে ও হাতে কম্পণ অনুভব করবেন।

c45bthp8

স্টেবিলিটি ও হ্যান্ডলিং এ নতুন Jawa -র তুলনা হয় না

রাইডিং, হ্যান্ডেলিং ও ব্রেকিং

Jawa –র সবথেকে আকর্ষনীয় ফিচার বাইকের সাসপেনশান। নতুন Jawa –র সামনে রয়েছে টেলিস্কোপিক ফর্ক। এই ফর্ক 135 মিমি সরতে পারে। বাইকের পিছনে থাকছে টুইন হাইড্রোলিক শক। 5টি আলাদা প্রিসেটে এই সাস্পেনশান অ্যাডজাস্ট করা যাবে। তবে এই বাইকের ফ্ল্যাট সিটে অভ্যস্ত হতে কিছুটা সময় লাগেছে। সোজা রাস্তায় দারুন স্টেবেল রাইড করা গিয়েছে। চালকের ওজনের উপরে নির্ভর করে পিছনের সাসপেনশান অ্যাডজাস্ট করে নেওয়া যাবে।

ghttj6jk

Jawa র সামনে রয়েছে একটি 280 মিমি ডিস্ক ব্রেক

 Jawa –র ওজন 170 কিলোগ্রাম। থাকছে 165 মিমি গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স। বাইকের ইঞ্জিন গার্ড অফ রোডে চালাতে সাহায্য করবে।  Jawa র সামনে রয়েছে একটি 280 মিমি ডিস্ক ব্রেক আর পিছনের চাকায় রয়েছে একটি 153 মিমি ড্রাম ব্রেক। এছাড়াও থাকছে সিঙ্গেল চ্যানেল ABS। Jawa তে রয়েছে একটি 14 লিটার ফুয়েল ট্যাঙ্ক।

ij9h3jlc

নতুন Jawa -র লুক গ্রাহকের নজড় কাড়বে

মতামত

লুকস বিভাগে সব বাস্কেই টিক চিহ্ন দিয়েছে নতুন Jawa। পারফর্মেন্সেকে প্রাধান্য দিয়ে এই মোটরসাইকেল তৈরী হয়নি। রোজের ব্যবহারে আপনার আপন হয়ে উঠবে এই ইঞ্জিন। ক্লাসিক বাইক সেগমেন্টে ভারতের মোটরসাইকেল বাজারে নিঃসন্দেহে ঝড় তুলবে এই নতুন Jawa।

ft5lg2o4

1.65 লক্ষ টাকা থেকে Jawa –র এক্স শো রুম দাম শুরু হচ্ছে

0 Comments

1.65 লক্ষ টাকা থেকে Jawa –র এক্স শো রুম দাম শুরু হচ্ছে। বাজারে Royal Enfield Classic 350 কে বাজারে চ্যালেঞ্জ জানাবে এই মোটরসাইকেল। ক্লাসিক বাইক কেনার ইচ্ছে থাকলে আর হাতে একটু সময় থাকলে নতুন Jawa বিক্রি শুরু হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে পারেন। হয়তো টেস্ট রাইডেই আপনার মন জিতে নেবে নতুন Jawa।

অটো সংক্রান্ত সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.

Be the first one to comment
Thanks for the comments.